HalimBD.com

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স বাংলাদেশ


অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স বাংলাদেশ পুলিশের একটি ডিজিটাল সেবা। এই সেবা যেন আপনার জন্য টেনশন বা বিরক্তির কারণ না হয় সেজন্য আপনাকে আবেদনের কারেন্ট স্ট্যাটাস বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানা জানতে হবে। আপনার আবেদনের বর্তমান অবস্থা যদি Pending for Payment দেখায় তাহলে বুঝেতে হবে আপনার আবেদনটি জমা হয়নি। একটি সফল আবেদনের কারেন্ট স্ট্যাটাস Application Submitted আবার যদি Draft দেখেন তাহলেও কিন্ত আপনার আবেদনটি জমা হবে না। তাই আপনার আবেদনটির কাজ সম্পন্ন করার জন্য আপনার আইডিতে প্রবেশ করতে হবে। তারপর সেখান থেকে My Account এ ক্লিক করতে হবে। বামপাশে দৃষ্টি রাখলে Dashboard দেখতে পাবেন তারপর সেখান থেকে Pending For Payment এ ক্লিক করতে হবে। Pending For Payment এ ক্লিক করলে আপনি পরবর্তী কাজ করার লিংক পাবেন। সর্ব বামে Payment লেখাটির উপর ক্লিক করুন। তারপর ২ নং অপশনে ক্লিক করলে আপনি চালান তথ্য জমা দেয়ার বক্স পাবেন। চালান তথ্য ইনপুট করুন


Draft Application

মনে রাখবেন, একটি আবেদন Draft থাকাবস্থায় আপনি আরেকটি আবেদনের কাজ করতে পারবেন না। অনেক সময় দেখা যায় একজন আবেদনকারী পূর্বে একবার অনলাইনে আবেদন করার চেষ্টা করেছিল কিন্তু কোন কারণে সেই কাজটি আর সম্পন্ন করা হল না। পরবর্তীতে কয়েকদিন/কয়েকমাস পর আবারও চেষ্টা করল কিন্তু তিনি কিছুতেই করতে পারছেন না এবং পূর্বে যে একবার চেষ্টা করা হয়েছিল সেটাও তার মনে নেই আর তখনই হয় সমস্যা । এক্ষেত্রে আগের আবেদনটি ডিলিট করা ছাড়া পরবর্তীতে আর কোন কাজ করা সম্ভব নয়। আইটি হেল্পডেস্ক, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকার সহযোগীতায় আপনাকে আগের আবেদনটি ডিলিট করতে হবে। হেল্পডেস্ক নম্বরে ফোন করে আগের আাবেদনটি ডিলিট করে নিন।

Application Rejected

Application Rejected তার মানে আপনার আবেদনটি বাতিল করা হয়েছে। আপনি যখন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য অনলাইনে একটি আবেদনের কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন করেন, তখন আপনার আবেদনটি আমাদের সিস্টেম সয়ংক্রিয়ভাবে আপনার সংশ্লিষ্ট মেট্রো/জেলার পুলিশ অফিসে প্রেরণ করে। আপনার আবেদনের ঠিকানাটি সংশ্লিষ্ট মেট্রো/জেলার অধীনে না হলে উক্ত পুলিশ অফিস আপনার আবেদনটি বাতিল করে দেবে। আর আপনি যদি প্রাথমিক যাচাই-বাছাইয়ে টিকে যান তাহলে আপনার আবেদনটি থানায় প্রেরণ করা হবে। সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জ একজন তদন্তকারী অফিসার নিয়োগ করবেন আপনার ঠিকানাটি যাচাই করার জন্য। উক্ত পুলিশ অফিসার আপনার ঠিকানায় সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে তদন্ত করবেন। আপনি উক্ত ঠিকানায় বসবাস করেন কিনা বা আপনি সেখানকার স্থায়ী বাসিন্দা কিনা তা যাচাই করবেন। এরপর তিনি আরো দেখবেন যে, থানায় আপনার বিরুদ্ধে কোন মামলা আছে কিনা । তদন্ত রিপোর্ট যদি আপনার বিপক্ষে যায় তাহলে আপনার আবেদনটি বাতিল হয়ে যাবে। আপনার আইডিতে প্রবেশ করার পর My Account এ ক্লিক করবেন তারপর সেখান থেকে আপনার রেফারেন্স নম্বরটি সার্চ করলে সর্বডানে আপনার কারেন্ট স্ট্যাটাস ও আবেদন বাতিলের কারণটি দেখতে পাবেন। ভুল সংশোধনের পর আপনি পুনরায় আবেদন করার সুযোগ পাবেন। এক্ষেত্রে আপনি পূর্বের চালান তথ্য ব্যবহার করতে পারবেন।


Payment Refused!

Payment Refused! এর মানে হলো আপনি আবেদনের সাথে যে চালান কপিটি আপলোড করেছেন সেটি ভুল। আবেদন সাবমিট করার পূ্র্বে ব্যাংকে ৫০০/- পাঁচশত টাকার ট্রেজারী চালান জমা দিতে হয়। ব্যাংক কর্তৃক স্বাক্ষরযুক্ত ও সীলমোহরকৃত উক্ত চালান ফরমটি আবেদনের সাথে জমা দিতে হয়। আর উক্ত চালান ফরমে টাকা জমা দানকারির নাম ও ঠিকানা স্পষ্টভাবে উল্লেখ থাকে । আপনি নিজের আবেদনের কাজ যদি নিজেই করেন তাহলে এই ভুল হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম থাকে। আর আপনি যদি কোন অনলাইন কম্পিউটারের দোকানে গিয়ে আবেদনের কাজ করেন তাহলে ভুল হওয়ার সম্ভাবন অনেক বেশি থাকে। দোকানদাররা এক সাথে অনেকগুলো আবেদনের কাজ করেন ফলে একজনের চালান কপি আরেকজনের আবেদনের সাথে আপলোড করে দেন যা ভুল কাজ। আবেদন বাতিল হওয়ার এটি অন্যতম কারণ। আপনি পুনরায় আবেদন করার সুযোগ পাবেন । এক্ষেত্রে আপনাকে পুনরায় ব্যাংকে টাকা জমা দিতে হবে না। আপনি পূর্বের চালান তথ্যই ব্যবহার করতে পারবেন। চালানকপি আপলোড করার সময় সতর্কতার সহিত কাজ করুন। আবেদন সাবমিট করার পর আপনার আবেদনের কারেন্ট স্ট্যাটাস Application Submitted দেখাবে ।


Application Closed!



Closed! তার মানে আপনার আবেদনটি স্থায়ীভাবে বাতিল করা হয়েছে। আবেদন বাতিলের সবচেয়ে ভারি শব্দ এটি। আপনাকে পুনরায় ট্রেজারী চালান জমা দিতে হবে। তার মানে আরো ৫০০/- পাঁচশত টাকা গুনতে হবে। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য অনলাইনে আপনি যখন একটি আবেদন জমা প্রদান করবেন তখন আমাদের সিস্টেম উক্ত আবেদনটি সংশ্লিষ্ট মেট্রো/জেলার পুলিশ অফিসে প্রেরণ করবে। প্রাথমিক যাচাই-বাছাইয়ের পর আপনার আবেদনটি থানায় প্রেরণ করা হয়। থানার অফিসার ইনচার্জ কর্তৃক একজন তদন্তকারী অফিসার নিয়োগ হয়। উক্ত পুলিশ অফিসার আপনার ঠিকানায় সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে তদন্ত করবেন। আপনি উক্ত ঠিকানায় বসবাস করেন কিনা বা আপনি সেখানকার স্থায়ী বাসিন্দা কিনা তা যাচাই করবেন। এরপর তিনি আরো দেখবেন যে, থানায় আপনার বিরুদ্ধে কোন মামলা আছে কিনা । তদন্ত রিপোর্ট যদি আপনার পক্ষেও থাকে আর সংশ্লিষ্ট থানায় আপনার বিরুদ্ধে কোন মামলা থাকে তাহলে আপনার আবেদনটি বাতিল করা হবে। আপনি পুনরায় আবেদন করার সুযোগ পাবেন না। পরবর্তীতে মামলা নিষ্পত্তি হলে আপনাকে পূর্বের ন্যায় পুনরায় ব্যাংকে টাকা দিতে হবে এবং আরো একটি আবেদন জমা প্রদান করতে হবে। আবারও তদন্ত করা হবে। আর তদন্ত রিপোর্ট যদি পজেটিভ হয় তাহলে আপনি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাবেন। অন্যথায় পাবেন না।



Copyright © All Rights Reserved By Halim BD