HalimBD.com

পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে যা করতে হবে



আপনি যদি অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ওয়েব পেইজের আপনার একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স আইটি হেল্পডেস্কের নম্বরে ফোন করে আপনার পাসওয়ার্ডটি রিসেট করে নিতে হবে। তারা আপনার মোবাইল নম্বরটি প্রাথমিকভাবে আপনার আইডিটি রিসেট করে দিবেন যাতে আপনি আপনার প্রোফাইলে প্রবেশ করে কাজ করতে পারেন। পরবর্তীতে আপনি পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে পারবেন। এখানে বলে রাখা প্রয়োজন যে, আপনি অবশ্যই সহজ একটি পাসওয়ার্ড ব্যবহার করবেন যাতে করে আপনি খুব সহজেই মনে রাখতে পারেন। অনেকেই এমন কঠিন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন যা লিখে রাখা ছাড়া উপায় থাকে না। এটা আপনার ফেসবুক আইডি না যে, গোপন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে। আপনার পিসিসি আইডি দিয়ে আবেদনের কাজ ছাড়া অন্য কিছু করা সম্ভব নয়। তাই এতো ভয় পাওয়ারও কোন কারণ নেই। তাই আমি আবারও বলছি আপনি সহজ একটি পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। যেমন- আপনার মোবাইলের যেকোনো চারটি বা তার বেশি ডিজিট। অথবা আপনার জন্মসাল অথবা যেকোনো চারটি বা তার বেশি সংখ্যা ব্যবহার করুন যাতে করে আপনি ভুলে না যান। লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।



আপনার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সার্টিফিকেটের আবশ্যিকতা


আপনি যখন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ওয়েব পেইজে আবেদনের কাজ করতে যাবেন তখন দ্বিতীয় ধাপে আপনার বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানার তথ্য ইনপুট করতে হয় । তখন আপনি যদি আপনার বর্তমান ঠিকানা ব্যবহার করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার বর্তমান ঠিকানার পক্ষে একটি ওয়ার্ড কাউন্সিলর সার্টিফিকেটের কপি আবেদনের সহিত সাবমিট করতে হবে। তবে এখানে উল্লেখ্য যে, আপনার বর্তমান ঠিকানাটি অবশ্যই পাসপোর্টে উল্লেখ করা সংশ্লিষ্ট মেট্রো/জেলাধীন হতে হবে । একটু পরিস্কার করে বললে- আপনার পাসপোর্টের এড্রেসেটি যদি ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার কোন একটি থানা হয় তাহলেই কেবল আপনি অন্য থানার অধীনে আবেদন করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনি বর্তমানে যে ওয়ার্ডে বসবাস করছেন সেই ওয়ার্ডের একটি কাউন্সিলস সার্টিফিকেটর প্রয়োজন হবে। আবেদনের কাজ করার সময় পাসপোর্ট কপি যেখানে আপলোড করবেন সেইখানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর সার্টিফিকেট আপলোড করার জায়গায় উক্ত সার্টিফিকেটটি আপলোড করতে হবে। অন্যথায় সংশ্লিষ্ট মেট্রো/জেলার পুলিশ অফিস আপনার বর্তমান ঠিকানায় আবেদন গ্রহণ করবেন না। এসময় সতর্ক থাকতে হবে আপনি যে কাগজগুলো আপলোড করছেন সেগুলো যেন পড়া যায় কারণ অনেকেই এমন কাগজ আপলোড করেন যেগুলো ঠিকভাবে বোঝা যায় না, পড়া যায় না। আপনার আবেদন বাতিল হওয়ার কারণ এটিও হতে পারে। তাই সতর্কতার সহিত কাজ করাই উত্তম। লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।



Copyright © All Rights Reserved By Halim BD